Wed. Jun 3rd, 2020

লাইভ স্পোস্টস নিউজ

সব ধরনের খেলার খবর

বিশ্বের ৫ জন সেরা নারী কার রেসার

1 min read
livesportsnewsbd.com

livesportsnewsbd.com

প্রযুক্তির যুগেও যে নারীরা পুরুষের চেয়েও কম নয় আজ তুলে ধরবো এমন ৫জন কার রেসারদের কথা।

নারী রেসার হিসেবে তারা দেখিয়ে দিয়েছে যে, তারা এত নিখুত ভাবে ও দ্রুত গাড়ি চালাতে পারে। যা পুরুষদেরও মাঝে মাঝে হার মানায়। বর্তমানে নারী রেসিং জগতে অন্যতম জনপ্রিয় নাম হচ্ছে ড্যানিকা প্যাট্রিক।

ড্যানিকা প্যাট্রিক একজন জনপ্রিয় রেসার হবার পাশাপাশি একজন নামকরা ক্রীড়াবিদও। তার আকর্ষণীয়ও চেহরার কারনে তিনি একজন সফল মডেল ও বিজ্ঞাপনের ব্র্যান্ড এম্বাসিডরও হয়েছেন।

ড্যানিকা একজন সফল ন্যাসকার ড্রাইভার এবং প্রথম নারী হিসেবে ইনডি কার সিরিজ রেস জিতেছেন।

সুসি উলফঃ

সুসি উলফ
সুসি উলফ

সুজানে উলফ সুসি তিনি একজন আমেরিকান রেসার। তিনি আগে মোটর সাইকেল চালাতেন কিন্তু পরে তিনি কার রেসিং এ তার ক্যারিয়ার শুরু করেন। প্রথম থেকেই তার রেসের প্রতি আগ্রহ ছিল তাই তিনি প্রতিযোগিতামূলক রেসে বেশি অংশগ্রহন করতেন। প্রত্যেকটা রেসে তিনি মারসিডিস গাড়ি ব্যবহার করতেন। তার ক্যারিয়ার শুরু হয় গো কার চ্যাম্পিয়নশীপ দিয়ে এবং পরবর্তিতে তিনি ফর্মুলা রেনলট, ফর্মুলা থ্রি সিরিজে অংশগ্রহন করেন।

তিনি ২০০৬ থেকে সুসি ডিটিএম চ্যাম্পিয়নশীপে একাধারে ২০১২ সাল পর্যন্ত অংশগ্রহন করেন। তিনি উইলিয়ামস ফর্মুলা ওয়ান দলের জন্য একজন টেস্ট ড্রাইভার হিসাবে রেস শুরু করেন ২০১২ সাল থেকে।

আগেই বলেছি উনি প্রত্যেকটা তিনি মারসিডিস গাড়ি ব্যবহার করতেন। এর কারনও একটা আছে তা হলো ২০১২ সালে তিনি মারসিডিসের নির্বাহী পরিচালক টটো উলফ কে বিয়ে করেন। তাদের ঘরে প্রথম সন্তান আসে ২০১৭ সালের দিকে। কিন্তু তার রেসের ক্যারিয়ার এখানেই সমাপ্তি হয় নি। তিনি পুনরায় ফিরে আসেন তার আপন এই জগতে।

মিকা ডুনোঃ

মিকা ডুনো
মিকা ডুনো

তিনি মূলত একজন ফ্যাশন মডেল ছিলেন। পাশাপাশি এই সুন্দরী এই মডেল একজন রেসার হিসেবেও পরিচিত ছিলেন। কিন্তু মডেল হিসেবে তার ক্যারিয়ার যতটুকু উজ্জ্বল ছিল প্রথম দিকে রেসার হিসেবে তেমনটি ছিল না। রেসে তার ক্যারিয়ার শুরু হয় একটু দেড়ী করে।

মিকা ডুনোর দেশ ভেনেজুয়েলাতে। সেখানে তিনি ভেনেজুয়েলার একটি ড্রাইভিং ক্লিনিক থেকে রেসিং এর আমন্ত্রন পান। আমন্ত্রন পাওয়ার পর তিনি বুঝতে পারেন আসলেই তিনি রেসের জন্য উপযুক্ত। তখনই তিনি তার রেস ক্যারিয়ার শুরু করেন। তিনি বিভিন্ন প্রতিযোগীতামূলক টুর্নামেন্টে অংশগ্রহন করতে থাকেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- আমেরিকান লে ম্যান্স সিরিজ, রোলেক্স স্পোর্টস কার সিরিজ ও ইন্ডি কার সিরিজ। ২৮ বছর বয়সে তিনি বিখ্যাত লে ম্যান্স রেসে দ্বিতীয় বারের মত অংশগ্রহন করেন।

লেইলানি মুনটারঃ

লেইলানি মুনটার
লেইলানি মুনটার

তিনি মূলত একজন পরিবেশ বিষয়ক কর্মী। ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে বায়োলজিতে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। বিভিন্ন পরিবেশ সম্পর্কিত প্রকল্পের সদস্য তিনি। কিন্তু রেসের প্রতি ভালবাসার জন্য হয়ে উঠেন একজন নারী রেসার।

তিনি একজন আমেরিকান রেসার। ২০১০ থেকে তিনি বিভিন্ন রেসে অংশগ্রহন করে আসছেন। তার রেসিং জীবন শুরু হয় প্রথমে ইন্ডি লাইটসে এবং পরে তিনি ইন্ডি প্রো সিরিজে অংশ নেন। মজার ব্যাপার হচ্ছে তিনি পৃথিবীতে সবচেয়ে দুর্বল ড্রাইভারদের একজন।

সিমোনা ডি সিলভাসট্রঃ

সিমোনা ডি সিলভাসট্র
সিমোনা ডি সিলভাসট্র

তিনি একজন দক্ষ রেসার। এই দক্ষতার জন্যই অল্প সময়ের মধ্যে অন্যান্যদের নজর কেড়েছেন। তার ফলে মাত্র ২৫ বছরের এই ঠোট্ট জীবনে ইন্ডি কার রেসিং, ফর্মুলা-ই চ্যাম্পিয়নশিপ রেসে অংশ করতে সক্ষম হয়েছেন। এছাড়া, ২০১৬-২০১৭ তে সিমনা অস্ট্রেলিয়ার প্রতিযোগিতামূলক “অস্ট্রেলিয়ান ভি এইট সুপারকারস চ্যাম্পিয়নশিপ” নামক একটি রেসে অংশগ্রহণ করেন। এই প্রতিযোগীতায় তার গাড়ীটি ছিল নিসান মাক্সিমা ভি। ২০১৮ সালেও তিনি বিভিন্ন রেসে অংশগ্রহণ করেছেন।

সিনডি অ্যালেমানঃ

সিনডি অ্যালেমান
সিনডি অ্যালেমান

তার বাড়ি সুজারল্যান্ড। তিনি জনপ্রিয় একজন সুইস রেসার। তিনি রেসারে এসেছেন পরিবার থেকে আকৃষ্ট হয়ে। কারন, তার বাবা ও ভাই ছিলেন সাবেক গো কার্টের রেসার। বলা যায় এটি পারিবারিক ভাবেই পাওয়া।

তার ক্যারিয়ার শুরু হয় ছোট ছোট প্রতিযোগীতার মাধ্যমে। তিনি প্রচুর ঐ প্রতিযোগীতাগুলোতে অংশগ্রহন করতেন। মজার ব্যাপার হলো তিনি বিশ্বের সেরা জিটি স্পোর্টস কার চালনায় পারর্দশি ছিলেন। এই গাড়িটিই চালিয়ে তিনি ২০১০ সালে বিখ্যাত FIA GT1 ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। জাপানে অনুষ্ঠিত সুপার জিটি সিরিজে ২০১২ তে প্রথম নারী হিসেবে অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *