Wed. Jun 3rd, 2020

লাইভ স্পোস্টস নিউজ

সব ধরনের খেলার খবর

করোনায় আটকে আছেন টেবিল টেনিস প্লেয়ার টেকমি সরকার

1 min read
livesportsnewsbd.com

livesportsnewsbd.com

কে জানতো সামান্য একটি ভাইরাস এতো ক্ষমতাশালী। পুরো বিশ্ব আজ দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে এই সামান্য একটি ভাইরাসের কাছে। এই ভাইরাসের কাছেই আত্মসমর্পণ করতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত মানুষকে।

টেবল টেনিস খেলোয়ার নিজ দেশ থেকে স্পেন গিয়েছিল স্প্যানিশ লিগে অংশ নিতে। নাম তার টেকমি সরকার দেশ ভারতে। এই মুহুত্বে আটকে আছেন মালাগায়। কারন ভারতে লকডাউন চলছে। ভারত সরকার ইতিমধ্যে সবধরনের বিমান চলাচল বন্ধ রেখেছেন। এমনকি নিজ দেশের অভ্যন্তরীন বিমান চলাচলও বন্ধ আছে।

কেন তাকে নিয়ে নিউজ, এর কারন হলো ভারতে রেলের এই প্যাডলার টেবল টেনিস ফেডারেশন অব ইন্ডিয়ার র‍্যাঙ্কিংয়ে রয়েছেন ১৪ নম্বরে এবং ভাল খেলার সুবাধেই স্পেনে গিয়ছিলেন স্প্যানিশ লিগে অংশ নিতে। এই লীগ টি ফ্রেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল এবং চলার কথা ছিল মে পর্যন্ত।

টেকমির বাড়ি ভারতের জলপাইগুড়ি। তিনি যখন স্পেনে যান তখন করোনার এতোটা দাপট ছিল না। কিন্তু স্পেনে যাওয়ার পরই জানতে পারেন খেলা আপতত হচ্ছে না। করোনা ভাইরাসে স্পেনের অবস্থা চিনের থেকেও খারাপ। ইতালির পরে এই ভাইরাসে সব থেকে ক্ষতিগ্রস্থ দেশ এখন স্পেন।

ওয়াশিংটনের জন হপকিংস ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী স্পেনে এখনও ৩৬৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। যেখানে চিনে মৃতের সংখ্যা ৩২৯১। ইতালিতে সব থেকে বেশি মৃত্যু হয়েছে যার সংখ্যা ৭৫০৩। স্পেনে এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৯,৫১৫। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ২০ শতাংশ।

ফলে, তিনি ২৪ মার্চের বিমানে দেশে ফেরার টিকিট কাটেন কিন্তু ভারত সরকার ২১ দিনের এক বিশাল লকডাউনের ঘোষণা দেয়।

টেকমি একবার্তায় বলেন, আমি এখানে ঠিক আছি। আমার ক্লাবের সদস্যরা পাশে রয়েছে, ওরা খাওয়ার এবং সবকিছু দিচ্ছে। ওরা আমার ফেরার টিকিট কেটেছিল ২৪ মার্চ কিন্তু সব বিমান বাতিল হওয়ায় আমি ফিরতে পারিনি।

তিনি আরও বলেন, আমার বাবা-মাও আমাকে সমর্থন করছে। আমার কোচ সব সময় আমাকে উপদেশ দেন তিনিও আমাকে গাইড করছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *